এলেন শুভ্র এর জীবনী – Allen Shubhro Biography

বাংলাদেশের টেলিভিশান জগতের উদীয়মান অভিনেতাদের মধ্যে যিনি খুব অল্প সময়ে বাংলাদেশের তরুন প্রজন্মের কাছে একজন প্রতিভাবান অভিনেতা হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্টিত করেছেন তার ইউনিক অভিনয় দক্ষতা দিয়ে । তিনি এলেন শুভ্র । বর্তমানে বাংলাদেশের টিলিভিশান ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম ব্যস্ত অভিনেতা তিনি ।

এলেন শুভ্র  ১৫ জুন ১৯৮৮ সালে ঢাকা শহরের একটি খ্রিস্টান পরিবারে জন্মগ্রহন করেন । বর্তমান বয়স ২৯ বছল । এলেনের উচ্চতা ৫ ফুট ২ ইঞ্চি ওজন ৬০ কেজি । এলেন শুভ্র নটরডেম কলেজ থেকে গ্যাজুয়েশান করেন এবং বর্তমানে এমবিএ করছেন ।

নটরডেম কলেজে পড়ার সময় মঞ্চে কাজের প্রতি আগ্রহ তৈরি হয় এলেন শুভ্র’র । প্রাচ্য নাট্যের নাটক সার্কাস সার্কাস মঞ্চে দেখার পর মঞ্চ নাটকের প্রতি ব্যাপক আর্কষন ফিল করেন তিনি । নাঠক দেখে বের হওয়ার সময় তার হাতে একটা লিফলেট পড়ে…যাতে ছিল প্রাচ্য নাট্যের অভিনয় কোর্সে ভর্তি হওয়ার বিঞ্জাপন । ঐদিনের পর থেকে তার মনের মধ্যে অভিনয়ের পোকাটা দানা বাধতে শুরু করে । পরে বাবা মায়ের অনুমতি এবং পরামর্শ করে প্রাচ্য নাট্যের ছয় মাসের একটা কোস করে বসেন শুভ্র এবং পরে ভাল পার্ফরমেন্স দেখিয়ে সদস্য হয়ে কাজ শুরু করেন মঞ্চ নাটকে এবং নিজেকে তৈরি করতে থাকেন ।

এলেন শুভ্র  অভিনীত প্রথম নাটক ছিল অমিতাব রেজার পরিচালিদ “ইচ্ছে হলো”। প্রথম নাটকে অভিনয় করেই সকলের নজর কাড়েন । এরপর তিনি একে একে কাজ করেন অনেকগুলো নাটকে । এখন পর্যন্ত প্রায় ১০০ টিরও বেশি নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি এবং একাধারে টেলিফিল্ম, শর্টফ্লিম, এবং অনেকগুলো টিভিসিতে অভিনয় করেছেন ।

তার অভিনিত নাটকের মধ্যে উল্লেখযোগ্য কিছু নাটক হলো, ইচ্ছে হলো, পিয়ন্তির জন্য একটু ভালবাসা, বেয়াদব, এক মুঠো ভালবাসা, প্রপোজ, ক্যানভাসে ভালবাসা, থার্ড জ্যানারেশান, ট্রিপটেন, উপহার, উপহার২,ইমপসিবল৫, হোমওয়ার্ক, মেঘলা, টমেটোক্যাচাপ, পার্শবর্তী প্রেমে নিবেদন,থ্রি ইডিয়টস, চুপ, যাকিছু ঘটে, ভালবাসার ভূত ভবিষ্যত, হুমায়ুন মিয়ার খোয়াব, হলুদ, জোনাক পোকা, বিকেল বেলার পাখি, ইডিয়েট, বন্ধুত্ব, নিউটনের আপেল এবং শর্ট ফ্লিম এলোমেলো বন্ধুত্ব, ছ্যাচড়া প্রেমিক, উপসংহার, মেডেল, ফেরা, ইত্যাদি । এর মধ্যে নাটক বিকেল বেলার পাখি, শর্টফ্লিম ফেরা এবং মেডেল দেখে এমন কোন দর্শক পাওয়া যাবেনা না যাদের চোখের কোনে পানি আসেনি ।  সাধারনত এলেন শুভ’র কমেডি এবং আবেগী চরিত্রগুলো দর্শকদের মনে দাগ কাটতো যথারিতী । এখন ও অনেক ফ্যানরা তাকে বলেন বাংলা নাটকের ভবিষ্যত মোশাররফ করিম এই ছেলেটা ।

২০১৭ সালে বড় পর্দায় পা রাখেন এলেন শুভ্র, অনিমেশ আইচ পরিচালনায় চলচ্চিত্র ভয়ংকর সুন্দুর ছবিতে  একজন বোবা ছেলের চরিত্রে অভিনয় করেন ।

এই টেলেনটেড অভিনেতা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও বেশ আলোচিত, এখন পর্যন্ত ফেইসবুকে তাকে প্রায় ১লক্ষ ২০ হাজারেরও বেশি লোক ফরো করেন । এলেন শুভ্র’র পারিশ্রমিক নাটক প্রতি ২০ থেকে ১ লক্ষ টাকা । অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি ভাল গান ও  কবিতা লিখেন । তিনি বাংলা এবং ইংরেজী ভাষা ছাড়াও  জাপানী ক্যান্টোনিজ ও ন্যাদাল্যান্ডের ডাচ ভাষায় কথা বলতে পারেন ।

নিজেকে নিয়ে অনেক স্বপ্ন দেখেন এলেন, একদিন অনেক বড় অবিনেতা হবেন এবং তিনি শুধু দেশেই নন দেশের বাইরেও অভিনয় করতে চান , এটা তার অদম্য ইচ্ছা । তার দ্বারা সম্ভব হলে তিরি অভিনয় দিয়েই বাংলাদেশকে ইন্টারন্যাশনালী আরও উপরে নিয়ে যেতে চান । অভিনয়ের মধ্যেই বেচে থাকতে চান তিনি………………….

এলেন শুভ্রর তার ইউনিক এবং দুর্দান্ত ভিন্নধর্মী অভিনয় দিয়ে খুব অল্প সময়ের মধ্যে অনেক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন এবং কোটি দর্শকের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন। লাইফ স্টোরি বাঙলার পক্ষ থেকে তার ভবিষ্যত সাফল্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করছি এবং আশা করি তিনি বাংলাদেশের নাট্য প্রেমিদের আরও ভালভাল নাটক উপহার দিবেন ।

ভিডিওটি ভাল লাগলে অবশ্যই একটা লাইক দিবেন কারন এটাই হলো আমার অনুপ্রেরনা….এবং বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন । পরবর্তীতে কার জীবন কাহিনী দেখতে চান তা কমেন্টে জানাবেন । সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ ।

Leave a Comment